কুরআন মাজীদ সম্পর্কে অমুসলিম পণ্ডিতদের অভিমত

কুরআন মাজীদ সম্পর্কে অমুসলিম পণ্ডিতদের অভিমত ; অত্যন্ত আনন্দের বিষয় হলো, বর্তমান অশান্ত বিশ্বের মানুষ গোমরাহী ও পথভ্রষ্টতার তিক্ত অভিজ্ঞতা লাভের পর পবিত্র কুরআনের মহান ও চিরন্তন সত্যের দিকে ক্রমশ আকষ্ট হয়ে উঠেছে । তাই পৃথিবীর বহু দেশের জ্ঞানী – গুণী মানুষ পবিত্র কুরআনের মহান শিক্ষা সম্পর্কে গবেষণা করেছেন । এ পর্যায়ে কয়েকজন পণ্ডিত ব্যক্তির মতামত এখানে পেশ করছি –
১ . অধ্যাপক পামার তার বিখ্যাত ” Introduction to the Quran ” নামক গ্রন্থে পবিত্র কুরআন সম্পর্কে বলেছেন , ” That the best of the Arab writers has never succeeded in producing anything equal in merit to the Quran ” , অর্থাৎ , “ আজ পর্যন্ত আরবের কোন বিখ্যাত সাহিত্যিকও কুরআনের সমকক্ষ সৌন্দর্যময় কোন গ্রন্থ প্রণয়ন করতে সমর্থ হননি ” ।
২ . কালাইন পবিত্র কুরআন সম্পর্কে বলেছেন , কুরআন শরীফে সাহিত্যের গুণ ছাড়া অন্য ধরনের গুণও আছে । কুরআনের ভাষা এবং বর্ণনাভঙ্গির কাছে সমস্ত শিল্পকলা এবং সাহিত্যের কলাকৌশল নিষ্প্রভ আজ পর্যন্ত দেড় হাজার বছর ধরে কেউ কুরআনের ভাষার মত আরবি ভাষা ব্যবহার করেছে , তার অন্য কোন দ্বিতীয় নজির নেই ।
৩ . প্রখ্যাত খ্রিষ্টান ঐতিহাসিক গীবন তার ” Decline and fall of the Roman Empire ” নামক গ্রন্থে বলেন ” Quran is a glorious testmoney of the unity of God ” . অর্থাৎ , “ পবিত্র কুরআন আল্লাহ তা ‘ আলার অদ্বিতীয়তার এক উজ্জ্বল নিদর্শন ” ।
পবিত্র কুরআন এবং প্রিয়নবী হযরত রাসূলে কারীম সু – এর প্রশংসায় পঞ্চমুখ এমন বহু অমুসলিম চিন্তাবিদ ও মনীষীদের নাম উল্লেখ করা যায় এবং তাদের উদ্ধৃতিও দেওয়া যায় ।
৪. স্যার উইলিয়াম মুইর বলেন , পবিত্র কুরআন স্বভাব , প্রকৃতি ও সৃষ্টিজগতের দ্বারা আল্লাহকে সর্বোচ্চ সত্তা হিসেবে প্রমাণ করেছে এবং মানবজাতিকে আল্লাহর আনুগত্য ও কৃতজ্ঞতার প্রতি আকৃষ্ট করেছে ।
৫ . অধ্যাপক এডওয়ার্ড জিব্রউন বলেন , আমি যতই কুরআন সম্পর্কে গবেষণা করি , এর অন্তর্নিহিত ভাবধারা ও তাৎপর্য অনুধাবনের চেষ্টা করি , ততই আমার মনে তার প্রতি শ্রদ্ধা ও সম্মান বর্ধিত হয় ।
৬ . মি . এমানুয়েল ডি এনশ বলেন , সমগ্র ইউরোপ যখন গভীর অন্ধকারে আচ্ছন্ন ছিল , তখন সেখানে কুরআনের আলোকরশ্মি প্রবেশ করে এবং তা গ্রীসের মৃত জ্ঞান ও বুদ্ধি সত্তাকে সঞ্জীবনী শক্তি দান করে ।
৭ . ড , জনসন বলেন , কুরআনের বক্তব্য এত সমইয়োপযোগী ও সহজযোগ্য যে , মানবজাতি তা সহজেই গ্রহণ করতে পারে । কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে , আমাদেরকে দেখে দেখে সারা দুনিয়া কুরআনকে উপেক্ষা করছে ।
৮. অধ্যাপক আর এ দিনকলসন বলেন , কুরআনের প্রভাবে আরবি ভাষা সমগ্র মুসলিম জাহানের মহিমান্বিত ভাষায় পরিণত হয়েছে এবং কুরআনই কন্যাসন্তান জীবন্ত প্রোথিত করার ন্যায় জঘন্য রীতির চির অবসান ঘটিয়েছে ।
৯ . মি , এইচ , এস , লিভার , বলেন , পবিত্র কুরআনের শিক্ষা থেকেই দর্শন ও বিজ্ঞান উৎসারিত হচ্ছে এবং এতে উন্নতির | এমন স্বর্ণযুগের সূচনা করেছে যে , সমসাময়িক ইউরােপের বড় বড় সাম্রাজ্যের জনবিজ্ঞানকেও ম্লান করে দিয়েছেন ।
১০ . মি . এ . ডি . মাবিল বলেন , ইসলামের শক্তি কুরআনেই নিহিত । কুরআন হচ্ছে আইনের উৎস এবং মানবাধিকারের শাশ্বত সনদ ।
১১ . মি . স্টেনলি লেনপুল বলেন , একটি বিশ্বজনীন ধর্মে যেসব উপাদান থাকা প্রয়োজন , তা কুরআনে রয়েছে এবং হযরত মুহাম্মদ সাঃ- এর ব্যক্তিসত্তায় তা সমুজ্জ্বল ।
১২ . এইচ , জি , ওয়েলস বলেন , কুরআন মুসলমানদের এমন গভীর ভ্রাতত্বের বন্ধনে আবদ্ধ করেছে যা বর্ণ , বংশ ও ভাষার সীমারেখা স্বীকার করে না ।
১২. পাদ্রি ভলা বসান ডিডি বলেন , কুরআন আনীত ধর্ম শান্তি ও কল্যাণের ধর্ম ।
১৩ . গড ক্লিহেংস বলেন , কুরআন দরিদ্রের হিতাকাঙক্ষী ও বন্ধু এবং ধনীদের অবিচারের কঠোর সমালোচক ।
১৪ . ডিন স্টোলী বলেন , কুরআনের আইন বাইবেলের আইনের চেয়ে অধিক প্রভাবশালী । এতে সন্দেহের কোনাে অবকাশ নেই । কিন্তু যে সত্য এখানে বিশেষভাবে প্রণিধানযোগ্য তা হলো, শুধু প্রশংসা কোন প্রকার উপকারী বা কার্যকরী হয় না যদি আল্লাহ তা ‘ আলা ও তাঁর রাসূলের প্রতি পূর্ণ ও প্রকৃত ঈমান না থাকে । । ইহজীবন ও পরকালীন জিন্দেগীর সামগ্রিক কল্যাণের জন্যে ঈমান হলো পূর্বশর্ত । ঈমানই মানুষের রক্ষাকবচ । মানবজীবনের সর্বশ্রেষ্ঠ সম্পদই হলো ঈমান । এটিই পবিত্র কুরআনের প্রথম আহ্বান এবং কুরআনের আলােকে এটিই মানবতার মূলভিত্তি । অতএব , কল্যাণকামী মানুষ মাত্রই পবিত্র কুরআনের আহ্বানে সাড়া দিতে হবে এবং মানবতার এ ভিত্তিকে সুদৃঢ় করে মানবতার উল্কর্ষ সাধনে তথা বিশ্বমানবতার কল্যাণ সাধনে আত্মনিয়োগ করতে হবে । আল্লাহ তা ‘ আলা আমাদের সকলকে এর তৌফিক দান করুন ( আমীন ) । কেননা , এই ঈমানের মাধ্যমেই স্রষ্টার সাথে সৃষ্টির সম্পর্ক ঘনিষ্টতর হয় । আর এটিই মানবজীবনের একমাত্র লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য । এ উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য অর্জিত হলেই জীবনসংগ্রাম সার্থক , সুন্দর ও সফলকাম হয় ।
১৫ . জর্জ বার্নাড ‘ শ বলেছেন “ বিশ্ববাসী , যদি তোমরা নিজেদের সমস্যার সমাধান করতে চাও এবং সর্বাঙ্গীন সুন্দর জীবনব্যবস্থা কামনা কর , তবে সংসারের নিয়ন্ত্রণভার মুহাম্মদ সাঃ – এর হাতে ছেড়ে দাও ” ।
১৬ . সবিখ্যাত জার্মান দার্শনিক ও কবি ‘ গ্যাটে তাঁর ‘ West oest licher Divan ‘ নামক গ্রন্থে পবিত্র কুরআন সম্বন্ধে মন্তব্য করত বলেন , ” However often we true to it ( Quran ) at first disgusting us each time afresh , it soon attracts astounds and in the end enforces our rever – ence , its style , in accordance with its contents and aim is stern , grand , terrible – ever and truly sublime . Thus this book will go on exercising through all ages a most potent influence ” ।
“ কুরআন প্রথমত আমাদের মনে এক বিজাতীয় বিতৃষ্ণা সঞ্চার করে । কিন্তু অতঃপর অতি শীঘ্রই আমাদেরকে তার প্রতি আকৃষ্ট করে নেয় । আমাদের হৃদয়মনে আলোক সম্প্রসারণ করতে অবশেষে তাকে সম্মান করতে আমাদেরকে বাধ্য করে ” । “ মত এবং উদ্দেশ্যানুযায়ী এর রচনাবলি অত্যন্ত জোরালো , উচ্চ এবং প্রভাবশীল । আমরা তা যতই পড়ি তার প্রতি | ততই আকৃষ্ট হই এবং আমাদের অন্তরে তার প্রভাব অনুভব করি ” ।
১৭ . বিখ্যাত আরবি ও ইংরেজি অভিধান প্রণেতা ড . স্টঙ্গাছ বলেন , “ আমরা একথা নিশ্চিতভাবে বলতে পারি যে , দুনিয়ার । মধ্যে কুরআন শরীফের সমকক্ষ কোন গ্রন্থই প্রণীত হয়নি ” ।
১৮ . কালাইল বলেন , সর্বোত্তমভাবে কুরআনের নিঃস্বার্থতা আমাকে তার গুণমুগ্ধ করে ” ।
১৯ . পবিত্র কুরআনের শক্তি সম্বন্ধে ইম্যানয়েল ডাস বলেন , একটি পুস্তক যার সাহায্যে আরবরা মহান আলেকজান্ডার অপেক্ষা রোম অপেক্ষা পৃথিবীর বৃহত্তর ভূভাগ জয় করতে সমর্থ হয়েছিল ; রোমের যত শতক বছর লেগেছিল তার জয় সম্পূর্ণ করতে , আরবের লেগেছিল তত দশক । এরই সাহায্যে সমস্ত সেমেটিক জাতির মধ্যে কেবল আরবরাই এসেছিল ইউরোপের রাজরূপে , যেখানে ফিনিশিয়রা এসেছিল বণিকরূপে আর ইহুদিরা এসেছিল পলাতক কিংবা বন্দিরূপে ।

তথ্য কণিকা

A Poor Servant of Almighty🙂

Posted in পবিত্র কুরআন

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Translate
ব্লগ বিভাগ
রেফার লিঙ্কঃ

হ্যালো! এই লিংক থেকে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে, প্রথমবার লগ ইন করুন। আপনি চলমান প্রথম অ্যাপ লগ ইন বোনাসের সাথে ২০টাকা এক্সট্রা বোনাস পাবেন। শর্ত প্রযোজ্য। ডাউনলোডঃ

https://www.bkash.com/app/?referrer=uuid%3DC1DPI569J

 

 

ব্লগ সংকলন
Follow Aimnote.TK on WordPress.com
%d bloggers like this: