বিশ্বের অদ্ভুত সব সীমান্ত (World Most Interesting Boarder)

আন্তর্জাতিক সীমান্ত বা এক দেশ থেকে অন্যদেশের মধ্যে যে সীমানা, তাতে কম করে হলেও কয়েক হাজার মাইল জুড়ে বেষ্টনী থাকে। পাশাপাশি সঙ্গে থাকে সীমান্তরক্ষীদের কড়া পাহারা।

কিন্তু বিশ্বে কিছু দেশের সীমান্ত রেখা এতটাই কম বা এতটাই কাছে যে, ভালো করে লক্ষ্য না করলে বোঝারই উপায় নেই তা পাশাপাশি দু’টো দেশের শেষভাগ।

নেই কোনো মজবুত বেষ্টনী ও সীমান্তরক্ষীদের কড়া পাহারা। দেখে মনে হয় যেন পুরো জায়গাটিই একটি দেশের। এমনকি মনের ভুলে যে কেউই এক দেশ থেকে অন্য দেশে চলে যেতে পারে।

ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাতের কথাই যদি বলি, রহস্যময় এ জলরাশি নিজেই আফ্রিকার দু’টি দেশের মধ্যবর্তী সীমান্ত হয়ে রয়েছে। দেশ দু’টি হলো জিম্বাবুয়ে ও জাম্বিয়া।

আবার ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাতের মতো নায়াগ্রা জলপ্রপাতও কানাডা এবং যুক্তরাষ্ট্রকে আলাদা করেছে।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় সীমানা পারাপার সান ইসিদ্রো/ এল চাপারাল মেক্সিকোর তিহুয়ানা ও যুক্তরাষ্ট্রের সানদিয়েগোর মধ্যে সীমান্ত রেখা এঁকেছে। তবে এখানে আলাদা বেষ্টনীও রয়েছে।

পিচের মেঝেতে শুধুমাত্র একটি সাদা দাগ টেনে দেওয়া। ব্যস, এটিই সীমান্ত। ভারত ও পাকিস্তানের সীমান্তরক্ষ‍ী বাহিনীর প্রতিদিনের সান্ধ্য কুচকাওয়াজের জন্য ওয়াগাহ সীমান্ত অনেক জনপ্রিয়। দু’টি দেশের এ সীমান্তে প্রতিদিনই সন্ধ্যায় অনুষ্ঠানটি শুরু হয় দুই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর কুচকাওয়‍াজের মাধ্যমে এবং শেষ হয় দুই দেশের পতাকা নামানো ও মূল গেট বন্ধের মাধ্যমে।

২৯ হাজার ফুটেরও বেশি উঁচু হিমালয় পর্বত নেপাল ও চীনের তিব্বতকে আলাদা করেছে।

অদ্ভুত সীমান্তগুলোর মধ্যে একটি হলো হাস্কেল লাইব্রেরি। একই ঘরে কোনাকোনি একটি কালো রেখা টানা। যার একপাশে কানাডার কিউবেকের  রক আইল্যান্ড ও অপরপাশে যুক্তরাষ্ট্রের ভেরমন্টের ডার্বি লাইন।
border_7
দেখে বোঝার উপায় নেই, এটিও দুই দেশের সীমান্ত হতে পারে। মেঝে বা আশেপাশের পরিবেশ সবই এক। তবে সীমান্ত দাগের এপাশ-ওপাশে লেখা রয়েছে দুই দেশের নাম। এনএল অর্থাৎ নেদারল্যান্ড ও বি অর্থাৎ বেলজিয়াম। নেদারল্যান্ডের বার্লে-নাসাউ ও বেলজিয়ামের বার্লে-হারটগ শহর দু’টির  মধ্যে এ সীমানা।

পুরোটাই সবুজ বন। কিন্তু নরওয়ে ও সুইডেনকে আলাদা করতে মধ্য সুইডেনের দালারনার এই বনের গাছগুলোকে কেটে অদৃশ্য সীমানা তৈরি করে দেওয়া হয়েছে দেশ দু’টির মধ্যে।

একপাশে ব্রাজিল আর অন্যপাশে আর্জেন্টিনা। দুই দেশের মধ্যে ইগাজু জলপ্রপাত।

পোল্যান্ড ও স্লোভাকিয়ার মধ্যবর্তী সীমানা নির্দেশ করছে  সিয়েমনিয়াক পর্বতের এই টিউন মার্কটি।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট

Advertisements

Ainul Islam munna. student.living in Chittagong, Bangladesh. fan of technology, photography, and music.interested in cricket and travel.

Posted in বিচিত্র-বিশ্ব

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

ব্লগ বিভাগ
ব্লগ সংকলন
%d bloggers like this: