ব্যবসা বনাম যুদ্ধ

যুদ্ধের সেরা পলিসি হল, কোনপ্রকার ক্ষতি ছাড়াই শত্রুর দেশ দখল করে ফেলা। শত্রু সেনা ধ্বংস করার চেয়ে আত্মসমর্পনে বাধ্য করতে পারাটা উত্তম। একশ যুদ্ধে জেতা মানেই যুদ্ধে এক্ষপার্ট,সেরা যোদ্ধা জাতি এমন না , সেরা সেই যে যুদ্ধক্ষেত্রে না গিয়েও শত্রুকে পরাজিত করতে পারে ” ব্যবসাতেও তেমন ই। বিজনেস রাইভাল জিনিশ টা সরাসরি দেখা না গেলেও আমি ২টা ঘটনা জানি।
১) নাম বলব না,আইটি পন্য বেচে এমন,বাংলাদেশে অন্যতম সেরা একটা কোম্পানী খবর পেল তারা যে হার্ড ডিস্ক বেচে সেই একই হার্ডিস্ক,সদ্য মার্কেটে এন্ট্রি নেয়া ছোট একটি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৫ কোটি টাকার মাল চট্রগ্রাম বন্ধরে চলে আসছে,খুব তারাতারি বাজারে আসবে। এবং একই সুযোগ সুবিধা সহ তারা আরো কম দামে দিবে। বড় কোম্পানীটি দেখল এমন হলে তাদের বিজনেস আদিপত্যে কিছুটা হলেও ধাক্কা লাগবে। সাথে সাথেই কোম্পানীর বড় মাথা গুলো বসে গেল তাদের স্ট্যাটেজি নিয়ে।আজকে ৫ কোটি টাকার মাল, কালকে হয়ত ৫০ কোটি টাকার আনবে। ওদের খরচ কম তাই কম দামে দিতে পারবে।বেশী বাড়তে দিলে পরে অন্য পন্যের মার্কেট শেয়ারেও ভাগ বসাবে। কেউ কেউ বলল ছোট কোম্পানী কি আর করবে ! এদের নিয়ে টেনশন নাই। কিন্তু পোড় খাওয়া একজন ঠিক ই বোঝলেন যে সাপ সেটা ছোট হোক কিংবা বড় বিষ তার সমান। পরের দিন ই তারা ছাড় দিয়ে মার্কেটে হার্ড ডিস্কের দাম দিলেন কমিয়ে, এদিকে সামনে আরো দাম কম্বে বলে একটা রিউমার ছড়িয়ে দিলেন। এমন এক দাম বসানো হল যে ছোট কোম্পানীর লাভ তো দূরে থাক, খরচ ই উঠে না। কেউ তাদের হার্ডীক্স নিতে চাচ্ছে না।মাল পরে আছে পোর্টে ,প্রতিদিন খরচ বাড়ছে । এক সময় বাধ্য হয়ে অনেক লস দিয়ে সেই হার্ডিক্স বেচে দিয়ে হাফ ছেড়ে বাচল, লস খেয়ে আর সোজা হয়ে দাড়াতে পারিনি ঐ কোম্পানী,অচিরেই মার্কেট থেকে নাই হয়ে গেল। ভাবছেন যেখানে ঐ ছোট কোম্পানী ই বেচতে পারেনি, কে সেই বেকুব যে কিনে নিল? !! ঐ বড় কোম্পানী ই অন্য লোক কে দিয়ে যে আবার ছোট কোম্পানীটির কাছের লোক তাকে দিয়ে কিনে নিল । তারপর কম দামে কেনা হার্ডিক্স + মার্কেট ক্রাইসিস করে দাম বাড়িয়ে ,কম দামে দিয়ে যে লস টা হয়েছিল সেটা পুষিয়ে আরো দ্বিগুন লাভ করেছিল সে বছর । ভাগ্য ভালো তাদের স্ট্যাটেজি এবং ট্যাকটিক্স ভালো ছিল, তারপর ও কম টাকা ছেড়ে দিতে হয়নি । এহল যুদ্ধ করে যেতা। একটু এদিক সেদিক হলেই লস হয়ে যেত।
২) চক বাজারে সম মানের ২টা কোম্পানী । একই পন্য বেচে। একবার টের পেল প্রতিদ্বন্ধী কোম্পানী কম দামে অরিজিনাল,২ নাম্বার মিক্স এক্স বডি প্রে নিয়ে আসছে, মার্কেট থেকে টাকাও নিয়েছে অনেক। সবাই তার কাছ থেকে কমে পাচ্ছে। আগে পাত্তা না দিলেও কোম্পানীটি বুঝল কিছু করতে না পারলে সব কাস্টমার তার প্রতিদ্বন্দির কাছে চলে যাবে। কি করা যায় কি করা যায়, ভাবতে ভাবতে অস্থির। যার কাছ থেকে সে এই খবর পেল,ঐ কোম্পানীতে চাকুরি করে। তাকে নিয়ে গোপন বৈঠক। সব প্লান প্রোগ্রাম হয়ে গেল। সিস্টেম করে, ঐ কোম্পানীর গোডাউনের পাশেই আরেকটা নকল কসমেটিক বিক্রি করত তার ওখানে পুলিশি রেইড দেয়াল। জেল জরিমানা করে ওটা বন্ধ করে দিল পুলিশ। এদিকে রিউমার ছড়িয়ে দিল যে পরের রাতে পুলিশ যে নকল বডি স্প্রে এনেছিল তার গোডাউনে আসবে রেইড দিতে। আর একবার রেইড দিলে হয় সব জব্দ করে দিবে, নয়ত বিশাল অঙ্কের জরিমানা। তাদের পলিটিকাল কানেকশন ও ভালো না। কি করা যায়। যদি সব মাল সরিয়ে নিতে পারত তাও একটা কথা ছিল। কিন্তু রাতারাতি দেড় দুই কোটি টাকার মাল কোথায় সরাবে। কোন ভাবে যদি ছাড়াতেও পারে কিন্তু যে সময় টা লাগবে সে সময়ে যারা টাকা এডভান্স দিয়েছিল তারা ১২টা বাজিয়ে দিবে। এখন উপায়? পাশ থেকে সেই কর্মচারি বুদ্ধি দিল তাদের প্রতিদ্বন্দির বড় গোডাউন আছে সেখানে রাখা যেতে পারে। সেক্ষেত্রে হয়ত কিচুটা ছাড় দিতে হবে। অনেক বার চিন্তা ভাবনা করে কোন উপায় না পেয়ে গেলেন তাদের কাছে। প্রথমে অবৈধ মাল রাখবে না বলে না না বল্লেও তারা অফার করল সব মাল কিনে নিবে, উনি যে টাকায় কিনেছে সেটাতেই, তবে টোটাল মালে একটা কমিশন দিতে হবে। সেটা প্রায় ১০ লাখ টাকার মত, পুলিশি যামেলা উনারা দেখবে। উনার পাওনা দার দের টাকা বা মাল ওরা দিবে, খালি উনার টাকা টা উনাকে ক্যাস দিয়ে দিবে। উপায় না দেখে মেনেও নিলেন। ওরা সিস্টেম করে পেয়ে গেল নগদ ১০ লাখ টাকা প্রফিট সাথে রেডি কাস্টমার, আর কারো কাছে মাল নেই দেখে দাম ও বাড়িয়ে দেয়া হল, তখন এক্স এর বেপক ডিমান্ড। এক সাথে চারদিক থেকে লাভ। তারপর প্রতিদ্বন্দি কোম্পানীটি ইম্পোর্ট করার সাহস হারিয়ে ফেলে, কাস্টমার হারিয়ে আসতে আসতে নাই হয়ে যায়। এটা হল সিস্টেম করে শত্রুকে আত্তসমর্পনে বাধ্য করা।এটাই সেড়া কারন যুদ্ধ জয় টা মেইন না মেইন হল যত কম খরচে জেতা যায় smile emoticon
যততা সহজ ভাবে লিখলাম আসলে এত সহজ না ব্যপার গুলো তারপর ও।
যুদ্ধে সব সময় ঐ কই কথা, কোন দয়া মায়া নাই,নেই নৈতিকতার বালাই। হয় মার নয়ত মর ! ব্যবসাতেও সেই একই কথা !
-আর্ট অফ ওয়ার পড়ে লেখাটা লেখা

Advertisements

student.living in Chittagong, Bangladesh. fan of technology, photography, and music.interested in cricket and travel.

Tagged with:
Posted in কপি-পেস্ট

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

ব্লগ বিভাগ
ব্লগ সংকলন
%d bloggers like this: